‘সাবধান ভারত, আগামীতে তোমরাই!’

অস্কার মনোনয়নপ্রাপ্ত ভারতীয় চলচ্চিত্র লগনের কথা নিশ্চয় মনে আছে অনেকের। ছবিটির নায়ক আমির খানের নেতৃত্বে ক্রিকেটের মাঠে ব্যাট-বলের লড়াই দিয়ে ব্রিটিশ শাসকদের অত্যাচার-শোষণের প্রতিশোধ নিয়েছিল ভারতের একটি গ্রামের অধিবাসীরা। রুপালি পর্দার মতো নাটকীয়তা না থাকলেও গত বুধবার ইংল্যান্ডের বিপক্ষে আয়ারল্যান্ডের জয়টা কিন্তু কম রোমাঞ্চকর ছিল না। ভারতের মতো আয়ারল্যান্ডও দীর্ঘদিন ছিল ব্রিটিশদের ঔপনিবেশিক শাসনের অধীনে। রূপকথার মতো জয়টা দিয়ে যেন তারা লগন ছবির মতোই তাদের সাবেক শাসকদের একটু চোখ রাঙিয়ে নিল। বুঝিয়ে দিল, এককালে তোমরা আমাদের অধীন করে রাখলেও, এখন আমরাও পারি তোমাদের দমিয়ে দিতে। পরের সবগুলো ম্যাচ হেরে দেশে ফিরলেও আইরিশ ক্রিকেটাররা যে নায়কোচিত সংবর্ধনা পাবেন, এ বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই। কারণ, তাঁরা খুব ভালোমতো চপেটাঘাত করতে পেরেছে ইংলিশদের জাত্যাভিমানে। এক আইরিশ সমর্থক বলেছেন, ‘আমরা যদি বিশ্বকাপের বাকি সবগুলো ম্যাচে হেরেও যাই, তাতে কিছুই যায় আসে না। সবচেয়ে বড় ব্যাপার হলো, আমরা হারাতে পেরেছি ইংলিশদের।’ শুধু এ একটা ম্যাচ দিয়েই আইরিশদের এবারের বিশ্বকাপ মিশন পুরোপুরি সফল বলে মন্তব্য করেছে অনেক সমর্থক। বাকি যা পাওয়া যাবে সেটা উপরি পাওনা। সমর্থকদের প্রত্যাশা অনেকাংশে পূরণ হয়ে গেলেও পোর্টারফিল্ড, ও’ব্রায়েনরা হয়তো তাদের স্বপ্নের গণ্ডি আরও কিছুটা বাড়িয়ে নিয়েছেন ঐতিহাসিক এ জয়ের পর। আর যেভাবে তারা ইংল্যান্ডকে পরাস্ত করেছে, তাতে সেই প্রত্যাশাটা খুব অন্যায্যও বলা যাবে না। বিশ্বকাপে আইরিশদের পরবর্তী প্রতিপক্ষ ভারত। একটা দিক দিয়ে মানসিকভাবে খুব কাছাকাছি আছে ভারতীয় উপমহাদেশ ও আয়ারল্যান্ডের মানুষেরা। এ দুই অঞ্চলের মানুষই ইংল্যান্ডের অন্যায়-অন্যায্য বঞ্চনার শিকার হয়েছে দীর্ঘদিন ধরে। গত বুধবার বেঙ্গালুরুর চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামেও টের পাওয়া গেছে এ নৈকট্যটা। ও’ব্রায়েনের বাউন্ডারিগুলোর পর আইরিশদের সঙ্গে গলা ফাটিয়ে চিত্কার করতে দেখা গেছে ভারতীয়দেরও। খেলা শেষে এক আইরিশ সমর্থক ভারতীয়দের ধন্যবাদ জানিয়ে বলেছেন, ‘তারা খুবই ভালো, খুবই বন্ধুত্বপূর্ণ।’ মানসিক দিক দিয়ে নৈকট্য থাকলেও মাঠে কিন্তু কেউই কাউকে ছাড় দেবে না। সেদিন কিন্তু এই চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামেই দুই দিকে থাকবে আয়ারল্যান্ডের ‘গ্রিন আর্মি’ আর ভারতীয় সমর্থকেরা। ইংল্যান্ড বধ করার পর এবার মহেন্দ্র সিং ধোনিদের দিকেও চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছেন এক আইরিশ সমর্থক। ‘সাবধান ভারত, পরবর্তীকালে তোমরাই!’ সত্যিই কিন্তু সাবধান হতে হবে ধোনিদের। ক্রিকইনফো।

  1. No trackbacks yet.

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: